http://pranershohorbd.net/wp-content/uploads/2022/09/logo-ps-1.png
ঢাকাWednesday , 28 December 2022
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-বিচার
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি বার্তা
  6. খেলাধুলা
  7. খোলা কলাম
  8. গনমাধ্যাম
  9. গাইবান্ধা
  10. চাকরি
  11. জয়পুরহাট
  12. জাতীয়
  13. ঢাকা
  14. তথ্যপ্রযুক্তি
  15. দিনাজপুর
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বগুড়া শেরপুরে নিলামে খাদ্যবান্ধব চাল ১৪ টাকা কেজি বিক্রি

admin
December 28, 2022 11:33 pm
Link Copied!

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি:

বগুড়া শেরপুরে খাদ্যবান্ধব কর্মসুচীর ৮ টন চাল চাল গোপন নিলামের মাধ্যমে নামমাত্র ১৪ টাকা কেজি দরে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। অথচ বর্তমানে বাজারে এই চালের মুল্য নুন্যতম ৩৫ থেকে ৩৮ টাকা। এতে সরকার রাজস্ব হারিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে বগুড়ার শেরপুর থানা চত্বরে এই নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। এসময় শেরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সানজিদা সুলতানা, শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার, উপজেলা খাদ্যনিয়ন্ত্রক মামুন এ কাইয়ুম উপস্থিত ছিলেন।

শেরপুর থানার এসআই আব্দুস সালাম জানান, ৮ হাজার ৩৪০ কেজি জব্দকৃত চাল নিলামে ১৯ জন তালিকাভুক্ত হলেও অংশ নেয় ১৬জন। এদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৪ টাকা কেজি ডাক ওঠায় শেরপুর শহরের প্রফেসর পাড়ার আজিজুল হকের কাছে চাল বিক্রি করা হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, শেরপুরের ধান-চাল ব্যবসায়ীদের না জানিয়ে অপ্রচলিত দুটি পত্রিকায় নামমাত্র বিজ্ঞাপন দিয়ে গোপনে সংক্ষিপ্ত নিলাম ডাক দেখিয়ে সরকারি চাল হাতিয়ে নিয়েছে একটি সিন্ডিকেট। পরে থানা চত্বরেই ১৪ টাকা কেজি চাল ৩৮ টাকায় গাবতলীর মোস্তফা নামের এক ব্যবসায়ী কিনে ট্রাক বোঝাই করে নিয়ে যান।

শেরপুর উপজেলার চালকল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলীমুর রেজা হিটলার জানান, নিলামের বিষয়টি আমাদের কেউ জানায়নি। আমরা জানতে পারলে অংশ নিতাম। সরকার আরও বেশি রাজস্ব পেতো।

শেরপুর থানার খাদ্য নিয়ন্ত্রক মামুন এ কাইয়ুম জানান, নিলামে আমি উপস্থিত ছিলাম। সর্বোচ্চ ২০ মিনিটের মধ্যেই ১৪ টাকা ডাক ওঠায় নিলামে চাল বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। তবে এ চালের বাজার মূল্য ৩৫ টাকার কম নয় বলে তিনি জানান।

শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার জানান, নিলাম ডাকে অংশ নেবার জন্য নোটিশ ও পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে। এতে শেরপুর ও বগুড়া থেকে অনেকেই অংশ নিয়েছে। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে কয়েকজন গণমাধ্যমকর্মীকেও আমি দেখেছি। তবে শেরপুর উপজেলার ধান চাল ব্যবসায়ীরা ছিলেন কি না এমন প্রশ্নের তিনি সদুত্তর দিতে পারেননি।

নিলামের সর্বোচ্চ ডাককারী আজিজুল হক জানান, ওই চাল ১৪টাকা কেজি দরে নিলামে ডেকে নেই। এর সঙ্গে সাড়ে ৭% ভ্যাটসহ টাকা পরিশোধ করেছি। পরে তা আরেকজনের কাছে বিক্রির কথাও তিনি স্বীকার করেন।

উল্লেখ্য, গত ২ ডিসেম্বর শেরপুর উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের মাগুড়ারতাইড় গ্রাম থেকে ২টি ভটভটিতে পাচারের সময় ৮ হাজার ৩৪০ কেজি খাদ্যবান্ধব চাল উদ্ধার করে এলাকাবাসী। পরে পুলিশ এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করে।

আমাদের দৈনিক প্রাণের শহর বিডি অনলাইনে সারাদেশের পাঠকরা নিউজ পাঠাতে পারেন" নিউজ পাঠানোর ইমেইল pranershohorbd@gmail.com এ। এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ ডেস্ক: থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।